নতুন ইসলামিক গজল ২০২২ | New islamic gojol 2022

islamic bangla gojol (বাংলা ইসলামিক গজল) নিয়ে আজকের আয়োজন। ইসলামী গজলের জনপ্রিয়তা দিন দিন বেড়েই চলেছে। যারা ধর্ম পালন করেন তাদের জন্য অশ্লীল গান বাজনার বিকল্প হিসেবে রয়েছে ইসলামী গজল শোনার সুযোগ। ইসলামিক গজল বলতে সে সকল সংগীতকে বুঝানো হয়, যেগুলোর মাঝে ইসলামিক তামাদ্দুন বা শিষ্টাচার ফুটিয়ে তোলা হয়। অথবা যে সকল সংগীতে আল্লাহ তায়ালার প্রশংসা বা রাসুল (সা.) এর মানে শানে গাওয়া হয়। ধরুন, নামাজ নিয়ে কেউ সংগীত রচনা করল। অবশ্যই এর মাধ্যমে ইসলামিক তামাদ্দুন বা শিষ্টাচার ফুটিয়ে তোলা উদ্দেশ্যে। সুতরাং এটিতে ইসলামী গজল, সংগীত বা নাশিদ বলা যেতে পারে। অনুরূপভাবে কেউ যদি আল্লাহ তা’য়ালার প্রশংসা বা রাসুল (সা.) এর মানে শানে কোনো সংগীত রচনা করে। তাহলে এগুলোও ইসলামী সংগীতের অন্তর্ভূক্ত হবে।

ইসলামিক গজল
নতুন ইসলামিক গজল ২০২২

নতুন ইসলামিক গজলের তালিকা

বছরের সেরা জনপ্রিয় ইসলামিক গজল নিয়ে আজকের আয়োজন। এ তালিকায় বর্ষ সেরা, জনপ্রিয় ও নতুন ইসলামিক গজলগুলো তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। তুমুল জনপ্রিয় ও নতুন ইসলামিক সংগীতগুলো দেখা যাক এক নজরে।

ঈদের নতুন গজল ২০২২

একদিনে পবিত্র মাস রমজান বিদায় নিচ্ছে। অপর দিকে ঈদুল ফিতর খুশি ও আনন্দের বার্তা নিয়ে হাজির আসছে। ঈদুল ফিতর উপলক্ষ্যে প্রকাশিত হচ্ছে নতুন নতুন ইসলামী গজল। তবে এ তালিকায় বাছাইকৃত গজলগুলোকেই অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। এ তালিকার শীর্ষে রয়েছে বর্তমান সময়ের সব চাইলে আলোচিত শিল্পী গোষ্ঠী কলরব-এর ঈদ উপলক্ষ্যে গাওয়া নতুন ইসলামিক সংগীত ‘মুবারক ঈদ মুবারক’। সংগীতটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন তাহসিনুল ইসলাম, শাফিন আহমেদ, শামিম আরমান, সাইফুল্লাহ নূর, আহনাফ খালিদ, ফজলে এলাহি সাকিব, নাসরুল্লাহ ইরফান ও সিফাত রহমান। সংগীতটি শুনতে বেশ মনোমুগ্ধকর।

ঈদ স্পেশাল সংগীত তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে মাহমুদ হুজাইফা এবং মাজহারুল ইসলামের কণ্ঠে গাওয়া নতুন সংগীত Antassalam (আনতার সালাম।) সংগীতটি আরবি ভাষায় গাওয়া হয়েছে। ঈদ উপলক্ষ্যে প্রকাশিত নতুন এই সংগীতটি ইউটিউবে ১৬ হাজার বারের অধিক দেখা হয়েছে।

মাকে নিয়ে গজল

বহু যাচাই বাছাইয়ের পর সদ্য প্রকাশিত ইসলামিক সংগীতগুলোর মাঝে একটি মাত্র সংগীত এ তালিকায় অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। সংগতটির নাম ‘মাগো তোমার ছবি আঁকা’। হলি টিউন থেকে প্রকাশিত এই সংগীতে কণ্ঠ দিয়েছে ৪ বছর বয়সী এক শিশু শিল্পী।

প্রবাসীদের নিয়ে গজল

প্রবাসীদের কষ্টের জীবন কাহিনী নিয়ে প্রকাশিত হয়েছে নতুন গজল ‘প্রবাসীর একলা ঘর’। গজলটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন স্বর্ণপদক প্রাপ্ত জনপ্রিয় ইসলামিক সংগীত শিল্পী আবু রায়হান। গজলটিতে প্রবাস জীবনের দুঃখ কষ্টের কথা ভালো ভাবে ঘুটিয়ে তোলা হয়েছে। অন্তত একবার হলেও সংগীতটি শোনার অনুরোধ থাকবে।

হৃদয়স্পর্শী সেরা গজল

এ তালিকায় শীর্ষে রয়েছে ‘কালিমা নসিব মোরে দিও’ গজলটি। জনপ্রিয় শিশু শিল্পী হুজাইফা ইসলামের কণ্ঠে “কালিমা নসিব মোরে দিও’ সংগীতটি পুনরায় প্রকাশিত হয়। ইতিপূর্বে এই সংগীতটি আবু রায়হানের কণ্ঠে প্রকাশিত হয়েছিল। নতুন এই গজলটিকে মৃত্যু কালীন যেন মুখে কালিমা উচ্চারিত হয়, সেই আকুল আবেদন আল্লাহ তায়ালার কাছে করা হয়েছে।

সময়ের সেরা নতুন ধারার ইসলামিক গজল

সময়ের ব্যবধানে ইসলামিক সংগীত চর্চার মাঝে পরিবর্তন লক্ষণীয়। প্রকাশিত হচ্ছে নতুন ধারার ইসলামিক নাশিদ বা গজল। সময়ের সেরা নতুন ধারার গজলগুলোর এ তালিকায় যুক্ত করা হয়েছে। প্রথমেই রয়েছে হলি টিউন থেকে প্রকাশিত কলরব শিল্পীগোষ্ঠীর প্রকাশিত নতুন ইসলামিক সংগীত ‘ইলাহি’। গজলটি দারুণ ভালো লেগেছে। সদ্য প্রকাশিত নতুন এই সংগীতে কণ্ঠ দিয়েছেন মুহাম্মদ বদরুজ্জামান, ইয়াসিন হায়দার, হাসান মাহদী, তাউহিদ জামিল ও তাহসিনুল ইসলাম। আশা করি, নাশিদটি আপনার কাছে ভালো লাগবে।


কলবর থেকে প্রকাশিত আরেকটি সেরা ইসলামিক গজল হল “মুস্তফা”। তারা বিশ্বজুড়ে এই সংগীতটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা ও সুখ্যাতি অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। তাউহিদ জামিল, রিফাত রহমান ও জাহিদুল ইসলাম সুমন-এর কণ্ঠে গজলটি পুনরায় প্রকাশিত হয়েছে।

এছাড়াও রয়েছে বর্তমান সময়ে জনপ্রিয় ইসলামী সংগীত শিল্পী আবু উবাদার সদ্য প্রকাশিত জনপ্রিয় কিছু ইসলামিক নাশিদ। যেগুলো আপনার হৃদয়কে ব্যাকুল করে তুলবে।

▶ ইয়া নবী সালামু আলাইকা

আল্লাহু আল্লাহ

▶ সুরমাদানি

 মাওলা য়া সাল্লি ওয়া সাল্লিম

এ ছাড়াও ২০২২ সালে প্রকাশিত নতুন কিছু হামদ, নাত ও ইসলামিক সংগীতের ভিডিও নিচে দেওয়া হল।

আজান হলো

 বাবা মানে…

রমাদান

 الوفاء – আল ওয়াফা

 আজব টাকা

বি.দ্র. হারাম বাদ্য যন্ত্র মুক্ত হওয়া ইসলামী গজল, সংগীত বা নাশিদ হওয়ার অন্যমত শর্ত। মোট কথা, যে সকল সংগীতে ইসলামি তামাদ্দুন বা শিষ্টাচার ফুটিয়ে তোলা হয়, পরকালীন মুক্তির কথা বার্তা থাকে, আল্লাহ ও তার রাসুলের শানে গাওয়া হয় এবং তাতে কোনো প্রকার হারাম বাদ্য যন্ত্রের উপস্থিতি নেই। তাকে ইসলামি সংগীত বলা হয়।

আরো পড়ুন: আরবি থেকে বাংলা অনুবাদ করার নিয়ম

হামদ ও নাত-এর মাঝে পার্থক্য

হামদ বলে বুঝানো হয় হামদে বারি তায়ালা। অর্থাৎ যা আল্লাহ তায়ালার প্রশংসায় যা গাওয়া হয়। আর নাত বলতে বুঝানো হয় নাতে রাসুল (সা.)। অর্থাৎ রাসুল (সা.) এর প্রশংসা সম্বলিত বাক্য বা কবিতাকে। যে সকল সংগীতে আল্লাহ তায়ালার প্রশংসা করা হয়। সেগুলোকে হামদ বলে। আর যে সকল সংগীতে রাসুল (সা.) এর প্রশংসা করা হয়। সেগুলোকে নাতে রাসুল (সা.) বা নাত বলা হয়।

আরো পড়ুন: ৩০+ ইসলামিক পোস্ট ও ইসলামিক পিকচার ডাউনলোড করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *