নগদ মোবাইল ব্যাংকিং লিমিট ২০২২ | nagad limit

নগদ মোবাইল ব্যাংকিং লিমিট ২০২২ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরব। পাশাপাশি নগদে ক্যাশ ইন, ক্যাশ আউট, সর্বোচ্চ ও সর্বনিন্ম দৈনিক কত টাকা এবং মাসিক কত টাকা লেনদেন করতে পারবেন। সে বিষয়ে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করা হয়েছে।

 ফাইনান্সিয়াল সেক্টরগুলো মধ্যে সবচেয়ে growth দেখা সেক্টর হচ্ছে MFS (Mobile Financial Services) সেক্টর। ২০১০-১১ সালে ডাক বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং ও বিকাশের মাধ্যমে বাংলাদেশে Mobile Financial Services বা MFS এর যাত্রা শুরু হয়। এদের মধ্যে বিকাশ গত দশকে সর্বাধিক সংখ্যক ব্যবহারকারী নিয়ে বাংলাদেশ MFS সেক্টরে প্রথম অবস্থানে রয়েছে।

নগদ মোবাইল ব্যাংকিং লিমিট
নগদ মোবাইল ব্যাংকিং লিমিট

দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ MFS প্রোভাইডার নগদ। পোস্ট অফিস অ্যাক্ট ২০১০ সালের অধীনে ২০১৯ সালে নগদ যাত্রা শুরু করে। প্রতিষ্ঠা হওয়ার মাত্র ৩ বছরের মধ্যে তিন কোটির কাছাকাছি মান্থলি Active ইউজার ও প্রায় সাড়ে চার কোটি ইউজার নিয়ে বাংলাদেশ MFS সেক্টরে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে।

নগদের এই সাফল্যের পিছনে Technological Adoption ও মার্কেট রিসার্চ অন্যতম। নগদ মোবাইল ব্যাংকিং লিমিট বা নগদ সেন্ড মানি লিমিট সম্পর্কে এই প্রবন্ধে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।

 

নগদ মোবাইল ব্যাংকিং লিমিট

বুঝানোর সুবিধার্থে নগদের লেনদেনকে ৩টি ভাগে ভাগ করেছি।

  • সীমা
  • দৈনিক
  • মাসিক

নগদ লেনদেন সীমা

সীমা বলতে আপনি এক বারে সর্বোচ্চ এবং সর্বনিন্ম কত টাকা লেনদেন করতে পারবেন। তা বুঝানো হয়েছে। অর্থাৎ একই সময়ে কত টাকা ক্যাশ ইন, ক্যাশ আউট, মোবাইল রিচার্জ এবং সেন্ড মানি করতে পারবেন। তা বুঝানো হয়েছে।

নগদ লেনদেন সীমা > ক্যাশ ইন

আপনি এক সাথে সর্বনিন্ম ৫০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত ক্যাশ ইন করতে পারবেন। ৫০ টাকার নিচে ৪০ টাকা বা ৩০ টাকা ক্যাশ ইন করতে পারবেন না। অনুরূপভাবে ৩০ হাজার টাকার উপরে যেমন: ৩১ হাজার টাকা ক্যাশ ইন করতে পারবেন না।

নগদ লেনদেন সীমা > ক্যাশ আউট

আপনি এক সাথে সর্বনিন্ম ৫০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত ক্যাশ আউট করতে পারবেন। ৫০ টাকার নিচে ৪০ টাকা বা ৩০ টাকা ক্যাশ আউট করতে পারবেন না। অনুরূপভাবে ২৫ হাজার টাকার উপরে যেমন: ২৬ হাজার টাকা ক্যাশ আউট করতে পারবেন না।

নগদ লেনদেন সীমা > সেন্ড মানি

আপনি এক সাথে সর্বনিন্ম ১০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত ক্যাশ ইন করতে পারবেন। ১০ টাকার নিচে ৯ টাকা বা ৫ টাকা সেন্ড মানি করতে পারবেন না। অনুরূপভাবে ২৫ হাজার টাকার উপরে যেমন: ২৬ হাজার টাকা এক সাথে সেন্ড মানি করতে পারবেন না।

নগদ লেনদেন সীমা > মোবাইল রিচার্জ

আপনি এক সাথে সর্বনিন্ম ১০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ১ হাজার টাকা পর্যন্ত মোবাইল রিচার্জ করতে পারবেন। ১০ টাকার নিচে ৫ টাকা বা ৭ টাকা মোবাইল রিচার্জ করতে পারবেন না। অনুরূপভাবে ১ হাজার টাকার উপরে যেমন: ১১০০ হাজার টাকা এক সাথে মোবাইল রিচার্জ করতে পারবেন না।

এই ছিল একই সময়ে নগদ মোবাইল ব্যাংকিং লিমিট-এর পরিমান।

আরো পড়ুন:  ফেসবুক প্রোফাইলে burhan wani এর Pic ব্যবহার হতে বিরত থাকুন

 

নগদ-এ দৈনিক লেনদেনের পরিমাণ

দৈনিক বলতে আপনি একদিনে সর্বোচ্চ এবং সর্বনিন্ম কত টাকা লেনদেন করতে পারবেন। তা বুঝানো হয়েছে।

নগদ দৈনিক লেনদেন> ক্যাশ ইন

আপনি দৈনিক সর্বোচ্চ ৫ বার ক্যাশ ইন করতে পারবেন। আর এই ৫ বারে আপনি সর্বোচ্চ ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত ক্যাশ ইন করতে পারবেন। ৫ বারের উপরে ক্যাশ ইন করতে পারবেন না। আপনি চাইলে এক বারেও ৩০ হাজার টাকা ক্যাশ ইন করতে পারেন। চাইলে ৫ বারেও করতে পারেন।

নগদ দৈনিক লেনদেনে> ক্যাশ আউট

আপনি আপনার নগদ একাউন্টে দৈনিক সর্বোচ্চ ৫ বার ক্যাশ আউট করতে পারবেন। আর এই ৫ বারে আপনি সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত ক্যাশ ইন করতে পারবেন। ৫ বারের উপরে ক্যাশ আউট করতে পারবেন না। আপনি চাইলে এক বারেও ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত ক্যাশ আউট করতে পারেন। চাইলে ৫ বারেও করতে পারেন।

নগদ দৈনিক লেনদেন> সেন্ড মানি

নগদ একাউন্টে দৈনিক ৫০ বার সেন্ড মানি করতে পারবেন।  ৫০ বারের অধিক সেন্ড মানি করতে পারেন না। আর এই ৫০ বারে সর্ব মোট ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত সেন্স মানি করতে পারতে পারবেন।

নগদ দৈনিক লেনদেন> মোবাইল রিচার্জ

সেন্ড মানির মত দৈনিক ৫০ বার মোবাইল রিচার্জের সুযোগ রয়েছে। ৫০ বারে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত দৈনিক মোবাইল রিচার্জ করতে পারবেন।

এই ছিল দৈনিক নগদ মোবাইল ব্যাংকিং লিমিট-এর পরিমান।

আরো পড়ুন: backlink কিভাবে তৈরি করবেন

 

নগদ-এ মাসিক লেদেনের পরিমাণ

মাসিক বলতে আপনি প্রতি মাসে সর্বোচ্চ কত টাকা এবং সর্বনিন্ম কত টাকা লেনদেন করতে পারবেন। তা বুঝানো হয়েছে।

নগদ মাসিক লেদেন > ক্যাশ ইন

নগদ একাউন্টে প্রতি মাসে সর্বোচ্চ ২৫ বার ক্যাশ ইন করতে পারবেন। আর এই ২৫ বারে সর্বোচ্চ ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ক্যাশ ইন করতে পারবেন।

নগদ মাসিক লেদেন > ক্যাশ আউট

প্রতি মাসে সর্বোচ্চ ২০ বার ক্যাশ আউট করতে পারবেন। আর এই ২০ বারে সর্বোচ্চ দেড় লক্ষ (১৫০০০০) টাকা পর্যন্ত ক্যাশ আউট করতে পারবেন।

নগদ মাসিক লেদেন > সেন্ড মানি

প্রতি মাসে ৫০ বার নগদ একাউন্ট থেকে সেন্ড মানি করতে পারবেন। আর এই ৫০ বারে ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত সেন্ড মানি করতে পারবেন।

নগদ মাসিক লেদেন > মোবাইল রিচার্জ

আপনি আপনার নগদ একাউন্ট ব্যবহার করে প্রতি মাসে ১৫০০ বার পর্যন্ত মোবাইল রিচার্জ করতে পারবেন। ১৫০০ বারের উপরে মোবাইল রিচার্জ করতে পারবেন না। আর এই ১৫০০ বারে সর্বোচ্চ ১ লক্ষ টাকা মোবাইল রিচার্জ করতে পারবেন।

এই ছিল মাসিক নগদ মোবাইল ব্যাংকিং লিমিট-এর পরিমান।

পুরো বিষয়টি সহজে বুঝার জন্য ছক আকারে নগদের অফার সমূহ উল্লেখ করা হয়েছ। ছক দেখে নিতে পারেন।

নগদ – সীমা

সেবার নাম সংখ্যা পরিমাণ
ক্যাশ ইন ৫০ ৩০০০০
ক্যাশ আউট ৫০ ২৫০০০
সেন্ড মানি ১০ ২৫০০০
মোবাইল রিচার্জ ১০ ১০০০

নগদ দৈনিক

সেবার নাম সংখ্যা পরিমাণ
ক্যাশ ইন ৩০০০০
ক্যাশ আউট ২৫০০০
সেন্ড মানি ৫০ ২৫০০০
মোবাইল রিচার্জ ৫০ ১০০০০

নগদ মাসিক

সেবার নাম সংখ্যা পরিমাণ
ক্যাশ ইন ২৫ ২০০০০০
ক্যাশ আউট ২০ ১৫০০০০
সেন্ড মানি ১০০ ২০০০০০
মোবাইল রিচার্জ ১৫০০ ১০০০০০

নগদ মোবাইল ব্যাংকিং লিমিট এর তালিকা ছক আকারে দেখানো হল। নগদ অ্যাপ ব্যবহার করে প্রতি মাসে কত টাকা লেনদেন করেছেন। তা দেখতে পারবেন।

nagad account limit
নগদ লিমিট
নগদ সর্বোচ্চ ব্যালেন্স

আপনার নগদ একাউন্টে সর্বোচ্চ ৩ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ব্যালেন্স রাখতে পারবেন। ৩ লক্ষ টাকার উপরে রাখতে পারবেন না।

নগদ মোবাইল ব্যাংকিং লিমিট ২০২২ নিয়ে এই ছিল আজকের আয়োজন। আশা করি, আপনারা উপকৃত হবেন। নগদ মোবাইল ব্যাংকিং লিমিট এর তালিকা সম্পর্কে আপনার মতামত জানান কমেন্ট বক্সে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.